Bangla News Line Logo
bangla fonts
৬ ভাদ্র ১৪২৬, বৃহস্পতিবার ২২ আগস্ট ২০১৯, ৯:১৩ পূর্বাহ্ণ
facebook twitter google plus rss
সর্বশেষ
নেত্রকোণায় গ্রেনেড হামলায় শহীদদের স্মরণে নানা কর্মসূচি নেত্রকোণায় এইডিস মশার লার্ভা , বাড়ির মালিককে জরিমানা নেত্রকোণায় এডিস মশার খোঁজে লার্ভা সংগ্রহ করছে স্বাস্থ্য বিভাগ জানিয়ার চর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে নানা অনিয়মের অভিযোগ নেত্রকোণায় পানিতে ডুবে বৃদ্ধের মৃত্যু

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের বদলি: সেই দুইজনকে চায়না নেত্রকোণাবাসি


নিজস্ব প্রতিবেদক, বাংলানিউজলাইন ডটকম: 8:23:25 PM02/05/2019


স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের বদলি: সেই দুইজনকে চায়না নেত্রকোণাবাসি

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ‘ দুর্ণীতির বলয়’ ভাঙতে সংস্থাটির ২৩ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে দুর্ণীতি দমন কমিশনের (দুদক)দেয়া চিঠির পরিপ্রেক্ষিতে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় দুই জনকে নেত্রকোণায় বদলি করে। 

দুদকের চিহ্নিত দুর্ণীতিবাজ ও স্বেচ্চাচারী এই দুইজনকে চায়না নেত্রকোণাবাসি।

দুইজন হচ্ছেন- চট্রগ্রামের স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরিচালকের (স্বাস্থ্য) কার্যালয়ের প্রধান সহকারি মাহফুজুল হক ও কুড়িগ্রামের চিলমারী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কম্পিউটার অপারেটর নেছার আহমেদ চৌধুরী। এদের মধ্যে মাহফুজুল হককে বদলি করে নতুন কর্মস্থল দেয়া হয়েছে নেত্রকোণা সিভিল সার্জন কার্যালয় আর নেছার আহমেদ চৌধুরীকে বদলি করা হয় নেত্রকোণার বারহাট্রা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে।

গত বৃহস্পতিবার মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের যুগ্ম সচিব (পার-২) এ কেএম ফজলুল হক খান স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে বদলির প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়।চিঠিতে বলা হয় আগামী ৭ দিনের মধ্যে তারা বদলিকৃত কর্মস্থলে যোগ না দিলে বর্তমান কর্মস্থল থেকে তাৎক্ষণিক অব্যাহতি পেয়েছেন বলে গণ্য হবে।

এর আগে ২৩ জানুয়ারি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে চিঠি পাঠায় দুদক। দুদক চিঠিতে বলেছে, এরা ক্ষমতার অপব্যবহার করে অঢেল সম্পদের মালিক হয়েছেন।তাদের বিরুদ্ধে দুদকে অনেক অভিযোগ জমা হয়েছে। এসব অভিযোগ অনুসন্ধান করছে দুদকের গোয়েন্দা ইউনিট।

নেত্রকোণা  উন্নয়নে  নাগরিক আন্দোলনের সভাপতি খানে আলম খান বলেন, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের এসব চিহ্নিত দুর্ণীতিবাজদের নেত্রকোণার মানুষ চায়না। এরা  নেত্রকোণাকে কলুষিত করবে। এদেরকে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে রেখে দেয়া হউক। তিনি দাবি জানিয়ে বলেন, কোনমতেই যেন তাদেরকে নেত্রকোণায় পাঠানো না হয়।

 নেত্রকোণা জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি সিতাংশু বিকাশ আচার্য্য বলেন, চিহ্নিত এই দুর্ণীবাজদের নেত্রকোণায় বদলি করা চলবেনা। আমরা নেত্রকোণার মানুষ সরকারি দপ্তরে দুর্ণীতিবাজদের চাইনা।

নেত্রকোণা জেলা সুজনের সভাপতি শ্যমলেন্দু পাল বলেন, দুদক যাদের দুর্ণীতিবাজ ও স্বেচ্ছাচারি হিসেবে চিহ্নিত করেছে তাদেরকে নেত্রকোণায় দেয়া যাবেনা। তাদেরকে অন্যত্র ব্যবস্থা করুক স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

 সোমবার বেলা আড়াইটার দিকে নেত্রকোণা সিভিল সার্জন মো: তাজুল ইসলাম জানান, মাহফুজুল হক ও নেছার আহমেদ চৌধুরী এখনও   নেত্রকোণায় কর্মস্থলে যোগ দেননি।

বাংলানিউজ লাইন.কম এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন: