Bangla News Line Logo
bangla fonts
১৭ ফাল্গুন ১৪২৭, মঙ্গলবার ০২ মার্চ ২০২১, ১২:৩৩ পূর্বাহ্ণ
facebook twitter google plus rss
সর্বশেষ
মুক্তিযোদ্ধাকে কটাক্ষের প্রতিবাদে বিক্ষোভে উত্তাল নেত্রকোণা নেত্রকোণায় প্রতিবেশীর ঘর থেকে গৃহবধূর বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার,আটক ২ বিদেশী ভাষার দাসত্ব করা চলবেনা- যতীন সরকার নেত্রকোণায় শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষা উপকরণ বিতরণ মায়ের ভাষাই মাতৃভাষা

শান্তিপূর্ণ পৌর ভোট চলছে নেত্রকোণায়


মজিবুর রহমান, বাংলানিউজলাইন ডটকম:


শান্তিপূর্ণ পৌর ভোট চলছে নেত্রকোণায়

নেত্রকোণায় দ্বিতীয় ধাপে কেন্দুয়া ও মোহনগঞ্জ  পৌরসভা নির্বাচনে শান্তিপূর্ণ ভোট গ্রহণ চলছে।

শনিবার  সকাল ৮টায় ৯টি কেন্দ্রে ইভিএমে ভোট গ্রহণ শুরু হয়। সকাল থেকেই কেন্দ্রগুলোতে ব্যপকহারে ভোটারের উপস্থিত হয়ে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করছেন।

পৌরসভা দুইটি হচ্ছে, মোহনগঞ্জ ও কেন্দুয়া পৌরসভা। ভোটযুদ্ধের এই আয়োজনে কেন্দুয়ায় ভোট গ্রহণ করা হচ্ছে ইভিএম ও মোহনগঞ্জ পৌরসভায় ভোট নেয়া হচ্ছে ব্যালটে।

শীতের মধ্যে সকালে ভোটগ্রহণ শুরুর সাথে সাথেই কেন্দুয়ার আলীপুর সরকারি প্রাথমিসক বিদ্যালয়ে ভোটাররা ভোট দিতে শুরু করেন। এই  কেন্দ্রে শুরুতেই ভোট দিতে ভোটারের দীর্ঘ লাইন । কেন্দ্রটির প্রিজাইডিং  ইউনুস রহমান রনি  জানান, এই কেন্দ্রে ২৪৩৪  জন ভোটার রয়েছেন।ভোট শুরুর সাথে সাথে ভোটারের ব্যাপক উপস্থিতি । আড়াই ঘন্টায় ৪০১টি ভোট পড়েছে। তারা শা্ন্তিপূর্ণভাবে ভোট দিচ্ছেন। কেন্দ্রের অবস্থা খুবই ভাল। ভোটারেরা উৎসাহের সাথে তাদের ভোট দিচ্ছেন বলেন তিনি। এই কেন্দ্রে ভোট দেন শতবর্ষি মস্কান মিয়া । ভাতিজা আবু জাফরের কাঁধে চড়ে ভোট কেন্দ্রে আসেন জ্যেষ্ঠ এই নাগরিক। তিনি বলেন, কয়ডা দিন বাঁচি না বাঁচি ।আর কুনু ভোট দিতারি ,না দিতারি কুনু টিক নাই। সহাল সহাল ভোট দিতাম আইয়া পরছি।  আগের থেইক্যা  ভোট দিছি সোজায়।একই কেন্দ্রে ভোট দেন  শেরপুর গ্রামের মিনা আক্তার। তিনি বলেন, ইভিএমে ভোট দিছি। খুউব সহজেই ভোট দিতাম পারছি।একই কথা বললেন , আলীপুর গ্রামের কামরুন্নাহার বেগম।

কান্দিউড়া গ্রামের সুমার সাহা ভোট দিয়ে এসে বলেন,ইভিএমে  ভোট ইজি।

এই কেন্দ্রে ভোট দেন কাউন্সিলর প্রার্থী মিজানুর রহমান মিজান। তিনি বলেন, ভোট সুস্ঠু হচ্ছে। একই কথা জানালেন সংরক্ষিত আসনের কাউন্সিলর প্রার্থী মনোয়ারা আক্তার।

জয়হরি স্প্রাই সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে ৯৩৬ ভোট। ১১টা নাগাদ প্রায় ১৬০ ভোট গ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে। কেন্দ্রপির প্রিজাইডিং কর্মকর্তা খায়রুল ইসলাম জানান, ১৭ শতাংশ ভোট পড়েছে এখন নাগাদ। শীতের কারণে সকালে একটু ভোট কম পড়লেও এখন ধীরে ধীরে ভোট পড়ার হার বাড়ছে।

সকাল ১০টার দিকে কেন্দুয়া পৌরসভার  বিএনপির মেয়র প্রার্থী  শফিকুল ইসলাম  বলেন, ভোটের পরিবেশ ভাল আছে ।এভাবে ভোট হলে জয়ী হবো।

সকাল সোয়া ১০টার দিকে নৌকার প্রার্থী আসাদুল হক ভুইয়া বলেন, সুষ্ঠু ও সুন্দর পরিবেশে ভোট হচ্ছে, ভোটার খুব আগ্রহে ভোট দিচ্ছেন।

মোহনগঞ্জ পৌরসভা ভোটের সহকারি রিটার্ণিং কর্মকর্তা ও উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা জহিরুল হক জানান, মেয়রপদে  চার জন , ৩৯ জন  সাধারণ কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর পদে ১৪ জন লড়ছেন। ভোটে ১০ হাজার ৯৯১ জন নারী ও  ১০ হাজার ৪১৩জন পুরুষ মিলিয়ে ২১ হাজার ৪০৪ জন ভোটার তাদের ভোটধিকার প্রয়োগ করছেন।৯টি কেন্দ্রে  ৯ প্রিজাইডিং, ৬৪ সহকারি,ও  ১২৮ জন পোলিং কর্মকর্তা এই ভোট  গ্রহণ করছেন। কোন রকম অশান্তি ছাড়াই নির্বিঘ্নে ভোট গ্রহনে পুলিশ, আনসার, র‌্যাব, বিজিবির পাশাপাশি ৯ জন নির্বাহী হাকিম ও একজন বিচারিক হাকিম দায়িত্ব পালন করছেন।

এখানে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের বর্তমান মেয়র লতিফুর রহমান নৌকা, আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী হয়ে নারকেল গাছ প্রতীকে লড়ছেন, তাহমিনা পারভীন বিথি, বিএনপির সাবেক মেয়র মাহবুবুন্নবী শেখ ধানের শীষ ও মোবাইল ফোন প্রতীকে স্বতন্ত্র রয়েছেন,  চৌধুরী কামাল আবু হেনা মোস্তফা।

এদিকে কেন্দুয়া পৌরসভায় মেয়র পদে আওয়ামী লীগের প্রার্থী বর্তমান মেয়র আসাদুল হক নৌকা  ও বিএনপির প্রার্থী উপজেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম ধানের শীষ প্রতীকে ভোট যুদ্ধে রয়েছেন। এখানে সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৩৪ জন ও সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর পদে ১৩ জন লড়ছেন।

জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং কর্মকর্তা আব্দুল লতিফ শেখ বলেন, ইভিএম পদ্ধতিতে সুষ্ঠু ভোট গ্রহণের জন্য ৯টি কেন্দ্রে ৯ জন প্রিজাইডিং, ৪২ জন সহকারি প্রিজাইডিং ও  ৮৪ জন পোলিং কর্মকর্তা দায়িত্ব পালন করছেন।এছাড়াও ৯ জন নির্বাহী হাকিম , ১ জন বিচারিক হাকিমসহ পর্যাপ্ত সংখ্যক পুলিশ, আনসার, র‌্যাব ও বিজিবি সদস্যরা  রয়েছেন ভোটের মাঠে। এই পৌরসভায় মোট  ১৬ হাজার ২৫৬ জন তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করছেন ।

বাংলানিউজ লাইন.কম এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন: