Bangla News Line Logo
bangla fonts
২১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, শুক্রবার ০৫ জুন ২০২০, ২:৫৫ পূর্বাহ্ণ
facebook twitter google plus rss
সর্বশেষ
পূর্বধলায় মাহেন্দ্র ট্রাক্টর-অটোরিক্সার সংঘর্ষে নিহত-১,আহত ৫ করোনা পরিস্থিতি : নেত্রকোণায় ৩২ জনকে তিন লাখ টাকা জরিমানা নেত্রকোণায় চিকিৎসক, স্বাস্থ্যকর্মীসহ ৬ জন করোনায় শনাক্ত নেত্রকোণায় ব্যাংকারসহ ২০ জন করোনায় শনাক্ত নেত্রকোণায় ফেসবুক হ্যাক করে চাদাঁবাজি চক্রের একজন আটক

মানুষ এ যুদ্ধেও বিজয়ী হবে -প্রশান্ত কুমার রায়


নিজস্ব প্রতিবেদক, বাংলানিউজলাইন ডটকম:12:38:48 PM03/28/2020


মানুষ এ যুদ্ধেও বিজয়ী হবে -প্রশান্ত কুমার রায়

 আমাদের বিচক্ষণতার সাথে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ ব্যবস্থা গড়ে তুলতে হবে। সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা গড়ে তুলতে হবে। শারীরিক সক্ষমতা বৃদ্ধি করতে হবে। রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করতে হবে। ধনী-গরীব নির্বিশেষে সকলকেই সরকারের গৃহীত কর্মসূচি বাস্তবায়ন করতে হবে।

করোনা পরিস্থিতি নিয়ে বাংলানিউজলাইন ডটকমের সাথে সাক্ষাৎকারে জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান প্রশান্ত কুমার রায় এসব কথা বলেন।

 নেত্রকোণায় এই পরিস্থিতিতে বিশেষ করে নিম্নআয়ের মানুষের ভোগান্তির কথা তুলে ধরে তার কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, সমাজের সক্ষম বিবেকবান মানুষদের দরিদ্র ও নিম্নআয়ের মানুষদের সহায়তায় পাশে থাকতে হবে। সরকারের পাশাপাশি যার যতটুকু সম্ভব তাই দিয়ে তাদের সাহায্য করতে হবে। এই পরিস্থিতি কতদিন চলে তা সুনির্দিষ্টভাবে আমরা এখনই বলতে পারছি না। আমাদের এ বিষয়ে আরও ভাবতে হবে। সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী জেলা পরিষদ ও আমি ব্যক্তিগতভাবে যা যা করণীয় তাই করার জন্য প্রস্তুত আছি এবং করছি।

জেলা পরিষদ ও নিজের ব্যক্তিগত উদ্যোগে জেলাজুড়ে সচেতনতামুলক লিফলেট বিতরণ,মাইকিং, মাস্ক বিতরণ, সাবান বিতরণসহ নানা কার্ক্রম চালাচ্ছেন প্রশান্ত কুমার রায়।

 প্রশান্ত রায়  আরো বলেন- আমি মনে করি, ইতোমধ্যে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকার দুটি জায়গায় সফল। প্রথমত দেশের প্রতিটি মানুষের কাছে এই বার্তা পৌঁছে গেছে যে, সাবধানতার বিকল্প নেই। সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে। যার ফলে, মানুষ কোন অতি প্রয়োজন ছাড়া বাসা থেকে বের না হওয়াসহ জনসমাগমে নিরুৎসাহিত হয়েছে। মানুষ মুখে মাস্ক ব্যবহার করছে। আগের তুলনায় এখন মানুষ অনেক পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন থাকার চেষ্টা করছে। দ্বিতীয়তঃ সমস্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, অফিস-আদালতে সাধারণ ছুটি ঘোষণা করায় মানুষ স্বস্তি পেয়েছে। আশাকরি মাঠে সেনাবাহিনী কাজ শুরু করায় তদারকি সহ শৃঙ্খলা আরও সুচারুভাবে সম্পন্ন হবে। আইইডিসিআর -এর কর্মকর্তারা যথাসাধ্য কাজ করে যাচ্ছেন। করোনা পরিস্থিতির ওপর সর্বদা নজর রেখে চলছেন। এদিকে সরকারের পাশাপাশি কিছু স্থানীয় সংগঠন, প্রতিষ্ঠান এবং অন্যরাও তাদের সাধ্যমতো সতর্কতামূলক প্রচারপত্র, হ্যান্ড স্যানিটাইজার ও মাস্কসহ মানুষের পাশে দাঁড়াচ্ছে। যা আমাদেরকে আরও আশাবাদী করে তোলে। আমি মনে করি, মানুষ হারবে না। মানুষ এ যুদ্ধেও বিজয়ী হবে।

বাংলানিউজ লাইন.কম এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন: