Bangla News Line Logo
bangla fonts
১২ মাঘ ১৪২৭, মঙ্গলবার ২৬ জানুয়ারি ২০২১, ২:২৭ পূর্বাহ্ণ
facebook twitter google plus rss
সর্বশেষ
গৃহহীনদের লাঞ্ছনা দিনের অবসান কেন্দুয়া-মোহনগঞ্জে নৌকার বিপুল জয়ে প্রশান্ত’র অভিনন্দন নেত্রকোণা পৌরসভা: ইভিএমের ভোটে ৬৬ প্রার্থীতা মোহনগঞ্জ পৌরসভায় আ. লীগ প্রার্থী জয়ী কেন্দুয়া পৌরসভা আবারো আ. লীগের দখলে

বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তনে সেদিনের নেত্রকোণা


নিজস্ব প্রতিবেদক, বাংলানিউজলাইন ডটকম:12:05:44 PM01/10/2021


বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তনে সেদিনের নেত্রকোণা

 পাকিস্তানের কারাগার থেকে মুক্ত হয়ে স্বাধীন বাংলাদেশে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রত্যাবর্তনে সেদিন সারাদেশের মতো নেত্রকোণাও আনন্দে মেতে উঠে। মুক্তিযোদ্ধাদের আগ্নেয়াস্ত্র থেকে আকাশে ফাঁকা গুলি বর্ষণ, আনন্দ মিছিলে উদ্বেলিত হয় নেত্রকোণা শহর।
তৎকালীন  নেত্রকোণা মহকুমা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন, হায়দার জাহান চৌধুরী। মুক্তিযুদ্ধে অংশ নেন তিনি। হায়দার জাহান বাংলাদেশ লিবারেশন ফোর্সের (বিএলএফ)নেত্রকোণা অঞ্চলের সহঅধিনায়ক ছিলেন।
 তিনি ১০ জানুয়ারি নেত্রকোণা কেমন ছিল তার বর্ণনায় বলেন, পাকিস্তানের কারাগার থেকে মুক্ত হয়ে মুক্তিযুদ্ধের মহানায়ক জাতির জনকের লন্ডন যাত্রার খবর পান রেডিও এবং টেলিভিশনে। এই খবরে বীর মুক্তিযোদ্ধাসহ নেত্রকোণার মানুষেরা আনন্দে মেতে উঠেন। তিনি বলেন, নেত্রকোণা থেকে একহাজারেরও বেশি  বিএলএফএ অংশ নেয়া বীরমুক্তিযোদ্ধারা  তাদের কাছে থাকা যুদ্ধাস্ত্র এসএলআর, রাইফেল, ষ্ট্যানগান থেকে আকাশে ফাঁকা গুলি বর্ষণ করে আনন্দ করতে থাকেন। তা পরে বঙ্গবন্ধু দেশের মাটি স্পর্শ করার পর পরই আনন্দের মাত্রা আরো বেড়ে যায়। মুর্হুমুহু ফাঁকা গুলিতে নেত্রকোণার আকাশ বাতাস প্রকম্পিত হতে থাকে।এসময় মুক্তিযুদ্ধের সংগঠকগণ, বিভিন্ন ফ্রন্ট থেকে মুক্তিযুদ্ধে অংশ নেয়া বীর মুক্তিযোদ্ধাগণ, আওয়ামী লীগ,ছাত্রলীগসহ মুক্তিকামী জনতা বাঁধভাঙ্গা আনন্দে মেতে উঠেন। শহরের ছোটবাজারের আওয়ামী লীগের কার্যালয় থেকে বের হয় আনন্দ মিছিল।সর্বস্তরের স্বাধীনতা প্রিয় হাজারো জনগণের স্বতস্ফুর্ত অংশ গ্রহণে নেত্রকোণা শহরের সড়ক জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু শ্লোগানে মুখরিত হয়ে উঠে। সড়কের পাশে থাকা বাসাবাড়ি থেকে মিছিলে অংশ নেয়া মানুষদের ওপর পূস্পবর্ষণ করা হয়। এছাড়াও সেদিন বিভিন্ন ধর্মীয় উপাসনালয়ে , বাসাবাড়িতে বঙ্গবন্ধু দেশে ফিরে আসায় সৃষ্টিকর্তার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে  প্রার্থনা করা হয়।একই অবস্থা ছিল নেত্রকোণার সবগুলো থানা সদরেও।
হায়দার জাহান চৌধুরী বলেন, সেদিনের সেই আনন্দ মিছিলে অংশ নেয়াদের মধ্যে মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক আব্দুল খালেক, ফজলুর রহমান খান, এনআই খান, আব্দুল মজিদ তারা মিয়া,আব্বাছ আলী খান, খালেকদাদ চৌধুরী, ড. জগদীশ চন্দ্র দত্ত, মাখন নাথ চৌধুরী, হাবিবুর রহমান খান, মাওলানা ফজলুর রহমান খান, ডা : জহির উদ্দিন, জামাল উদ্দিন আহমেদ, বীর মুক্তিযোদ্ধা মো: শামছুজ্জোহা, আশরাফ আলী খান খসরু, আবু সিদ্দিক আহমেদ, সাফায়েত আহমেদ খান, গোলাম এরশাদুর রহমান, গুলজার হোসেন, শহীদ উদ্দিন আহমেদ, আলতাব উদ্দিন আহমেদ, আব্দুল জব্বার, খন্দকার আনিছুর রহমান,আব্দুল মান্নানসহ অনেকেই ছিলেন।

বাংলানিউজ লাইন.কম এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন: