Bangla News Line Logo
bangla fonts
২১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, শুক্রবার ০৫ জুন ২০২০, ৪:০১ পূর্বাহ্ণ
facebook twitter google plus rss
সর্বশেষ
পূর্বধলায় মাহেন্দ্র ট্রাক্টর-অটোরিক্সার সংঘর্ষে নিহত-১,আহত ৫ করোনা পরিস্থিতি : নেত্রকোণায় ৩২ জনকে তিন লাখ টাকা জরিমানা নেত্রকোণায় চিকিৎসক, স্বাস্থ্যকর্মীসহ ৬ জন করোনায় শনাক্ত নেত্রকোণায় ব্যাংকারসহ ২০ জন করোনায় শনাক্ত নেত্রকোণায় ফেসবুক হ্যাক করে চাদাঁবাজি চক্রের একজন আটক

নেত্রকোণায় লক্ষণ ছাড়াই পরীক্ষা:দুইজন করোনাভাইরাস আক্রান্তে শনাক্ত


নিজস্ব প্রতিবেদক, বাংলানিউজলাইন ডটকম:6:31:27 PM04/12/2020


নেত্রকোণায় লক্ষণ ছাড়াই পরীক্ষা:দুইজন করোনাভাইরাস আক্রান্তে শনাক্ত

কোন রকম লক্ষণ ছাড়াই জেলার বাইরে থেকে আসায় নমুনা পরীক্ষা করতে যেয়ে নেত্রকোণায় নতুন করে দুইজন করোনাভাইরাস আক্রান্তে শনাক্ত হয়েছেন বলে জানিয়েছেন চিকিৎসা কর্মকর্তারা। এনিয়ে নেত্রকোণায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হলেন মোট ৪জন।
এদের মধ্যে একজন নারী পোশাককর্মী (২৮)। তার বাড়ি সদর উপজেলার মদনপুর ইউনিয়নের লক্ষীপুর গ্রামে। তিনি গাজীপুরের কোনাবাড়ির তমিজ উদ্দিন গার্মেন্টসে কাজ করেন। এর একদিন আগে এই গ্রামে আরো একজন আক্রান্ত হন।
অপর আক্রান্ত উন্নয়ন কর্মীর (৩৮)বাড়ি একই উপজেলার লক্ষীগঞ্জ গ্রামে। তিনি নরসিংদীর মানবিক সাহায্য সংস্থায় কর্মরত।
রবিবার বিকালে পরীক্ষার ফলাফলে নতুন এই দুইজন আক্রান্তের বিষয়টি নিশ্চিত করে সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবারপরিকল্পনা কর্মকর্তা আহসান কবীর রিয়াদ বলেন, আক্রান্তদের করোনার কোন লক্ষণ ছিলনা। বাইরের জেলা থেকে আসায় স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ১০ এপ্রিল তাদেরকে করোনা পরীক্ষার জন্যে হাসপাতালে পাঠান। ওইদিনই তাদের নমুনা সংগ্রহ করে ময়মনসিংহে পাঠানো হয়। আজ বিকালে পরীক্ষার ফলাফলে তাদের পজিটিভ আসে। কোন লক্ষণ ছাড়াই করোনার পজিিিটভ বিষয়টি আমাদের জন্যে ভাবনার।
তিনি আরো জানান, আক্রান্ত উন্নয়নকর্মী ৪ দিন আগে কর্মস্থল থেকে ফিরে নিজের গ্রামের বাড়িতে গিয়ে উঠতে চাইলে এলাকাবাসি বাধা দেন। পরে তিনি তার শ্বশুরবাড়ি মদনপুর ইউনিয়নের মনাং গ্রামে যান। আপাদত আক্রান্তদের নিজের বাড়িতে আইসোলেশনে রেখে চিকিৎসা দেয়া হবে বলে জানান তিনি।
তিনি আরো জানান, আক্রান্ত ব্যাক্তি এখনও মনাং গ্রামের শ্বশুরালয়েই আছেন। সেখানে দুইটি বাড়ি লকডডাউন ঘোষণা করা হয়েছে।
এর আগে ১০ এপ্রিল জেলার খালিয়াজুরী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জ্যেষ্ঠ সেবিকা ও সদর উপজেলার লক্ষীপুর গ্রামের কুমিল্লা ফেরত এক ব্যাক্তি (৫৫) আক্রান্ত হন। এ ঘটনায় খালিয়াজুরী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও লক্ষীপুর গ্রাম অবরুদ্ধ রাখা হয়। আক্রান্ত সেবিকার শ্বাসকষ্ট দেখা দিলে তাকে রবিবার বিকালে ময়মনসিংহ এসকে হাসপাতালে পাঠানো হয় বলে জানান, খালিয়াজুরী থানার ওসি এটিএম মাহমুদুল হক। এ দিকে লক্ষীপুর গ্রামে পর পর দুইজন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ায় স্থানীয়দের মাঝে উদ্বেগ উৎকন্ঠা দেখা দেয়।

বাংলানিউজ লাইন.কম এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন: