Bangla News Line Logo
bangla fonts
৪ আশ্বিন ১৪২৬, বৃহস্পতিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২:২৬ অপরাহ্ণ
facebook twitter google plus rss
সর্বশেষ
নেত্রকোণায় গৃহবধূ ধর্ষণের অভিযোগ, অভিযুক্ত গ্রেপ্তার প্রশাসন সেই নারীর দায়িত্ব নেয়ার পর চিকিৎসা শুরু পূর্বধলায় আলোর ফেরিওয়ালা বিদুৎসংযোগ:১২৬ বাড়ি আলোকিত নেত্রকোণায় বাউল সাধক রশিদ উদ্দিনের স্মরণ উৎসব নেত্রকোণায় দুর্গাপুজা উদযাপনে সভা

নেত্রকোণায় মগড়া নদী থেকে গলিত মরদেহ উদ্ধার


নিজস্ব প্রতিবেদক, বাংলানিউজলাইন ডটকম:12:02:40 PM02/19/2019


নেত্রকোণায় মগড়া নদী থেকে গলিত মরদেহ উদ্ধার

 নেত্রকোণায় মগড়া নদী থেকে একজনের গলিত মরদেহ উদ্ধার করা করেছে পুলিশ। এর আগে এক নারী গরুর খাদ্যের জন্যে কুচিরিপানা সংগ্রহ করতে গিয়ে খোঁজ পান এই মৃতদেহের। 

  সোমবার দুপুরে নেত্রকোণা মডেল থানা পুলিশপৌর শহরের ধারিয়া এলাকায় মগড়া নদী থেকে দেহটি উদ্ধার করে।

গলিত এই মৃতদেহটি নারী না পুরুষের তা এখনো সঠিকভাবে নির্ণয় করা যাচ্ছে না। তবে পুলিশের ধারণা এটি একজন নারীর মৃতদেহ হতে পারে।

নেত্রকোণা মডেল থানার ওসি বোরহান উদ্দিন খান স্থানীয়দের বরাত দিয়ে বলেন, দুপুর  সোয়া ১২টার দিকে পৌর শহরের ধারিয়া এলাকার পাশে মগড়া নদীতে একজন নারী গরুর জন্য কুচুরিপানা সংগ্রহ করছিলেন।  তিনি কোমড় পানিতে নেমে কাচি দিয়ে কুচুরিপানা টানার সময়  মানুষের গলিত একটি হাত  দেখতে পান। এ সময় তিনি ভয়ে চিৎকার দিয়ে দৌড়ে নদীর তীরে উঠে আসেন। বিষয়টি জেনে স্থানীয় লোকজন  নদীর পানিতে নেমে মৃতদেহটি দেখতে পান। পরে তারা পুলিশে খবর দেন।পুলিশ গিয়ে লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নেত্রকোণা আধুনিক সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

 ওসি আরো বলেন, গলে যাওয়ায় লাশটি নারী না পুরুষের তা সঠিকভাবে চেনা যায়নি। আনুমানিক মাস খানেকের মতো সময় ধরে পানিতে থাকায় শরীর পচে  গেছে। মাথার চুলও ঝড়ে গেছে।লাশের সঙ্গে একটি শীতের পোশাক রয়েছে।তবে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে এটি একজন নারীর দেহ হতে পারে।ময়নাতদন্তের পর তা নিশ্চিত হওয়া যাবে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে  দুর্বৃত্তরা হত্যার পর লাশটি নদীর পানিতে  কুচুরিপানায় ঢুবিয়ে ফেলে যায় যোগ করেন ওসি।

বিষয়টি নিয়ে তদন্ত করা হচ্ছে। এ বিষয়ে থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলার প্রস্তুতি চলছে, বলেন ওসি।

 

 

বাংলানিউজ লাইন.কম এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন: