Bangla News Line Logo
bangla fonts
৫ মাঘ ১৪২৬, রবিবার ১৯ জানুয়ারি ২০২০, ১২:০৩ পূর্বাহ্ণ
facebook twitter google plus rss
সর্বশেষ
ক্রীড়ায় মুজিববর্ষের যত আয়োজন সাঈদ খোকনের হাতে চিঠি তুলে দিলেন ওবায়দুল কাদের বিচারের জন্য প্রস্তুত আবরার হত্যা মামলা নেত্রকোণায় প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ নেত্রকোণায় বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে নানা আয়োজন

নেত্রকোণায় বোমা হামলা মামলার সর্বশেষ


নিজস্ব প্রতিবেদক, বাংলানিউজলাইন ডটকম:12:45:52 PM12/08/2019


নেত্রকোণায় বোমা হামলা মামলার সর্বশেষ

২০০৫ সালের ৮ ডিসেম্বর শহরের অজহর রোডে উদীচী শিল্পী গোষ্ঠী ও শতদলের কার্যালয়ের সামনে জেএমবির আত্মঘাতী বোমা হামলায় উদীচীর খাজা হায়দার হোসেন ও সুদীপ্তা পাল শেলীসহ আট জন নিহত হন, আহত হন অন্তত অর্ধশত।

ওই ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে নেত্রকোণা মডেল থানায় দুইটি মামলা করে। পুলিশের করা হত্যা মামলার রায়ে ২০০৮ সালের ১৭ ফেব্রুয়ারি আসামি আসাদুজ্জামান চৌধুরী ওরফে পনির, সালাউদ্দিন ওরফে সোহেল ও ইউনুছ আলীকে মৃত্যুদন্ড দেয় ঢাকার দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল-২।

মামলার অপর আসামি সিদ্দিকুর রহমান বাংলাভাই  ও আতাউর রহমান সানির অন্য মামলায় ফাঁসি কার্যকর হওয়ায় তাদের অব্যাহতি দেওয়া হয়। এছাড়াও বাংলা ভাইয়ের স্ত্রী  ফারজানাকে খালাস দেওয়া হয়।

নিম্ন আদালতের রায়ের বিরুদ্ধে আসামি পনির আপিল করেন। পাশাপাশি আসামিদের ডেথ রেফারেন্স (মৃত্যুদন্ড অনুমোদন) শুনানির জন্য হাইকোর্টে আসে।

শুনানি নিয়ে ২০১৪ সালের জানুয়ারিতে হাই কোর্ট নিম্ন আদালতের রায় বহাল রাখে।

জেএমবির সদস্য পনির হাইকোর্টের এই রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করেন। পরে ২০১৬ সালের ২৩ মার্চ আপিল বিভাগ খারিজ করে দেয়। ফলে সর্বোচ্চ সাজার আদেশই বহাল থাকে।পরে এই আদেশ পুনর্বিবেচনার জন্যে আবেদন করেন পনির। গত ১৪ নভেম্বর প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বের আপিল বেঞ্চ আবেদনটি খারিজ করে দেয়। ফলে ফাঁসির রায় কার্যকর করতে সরকারে কাছে আইনগত বাঁধা থাকছে না। তবে আসামি চাইলে রাষ্ট্রপতির কাছে প্রাণভিক্ষার আবেদন করতে পারবেন। 

আদালতে আসামি পনিরের পক্ষে ছিলেন, আইনজীবী খন্দকার মাহবুবে হোসেন। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন, অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম ও ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বিশ্বজিত দেবনাথ।

খন্দকার মাহবুবে হোসেন সেদিন সাংবাদিকদের বলেছিলেন, “ রাষ্ট্রপতির কাছে প্রাণভিক্ষা চাওয়া ছাড়া এ আসামির সামনে আইনগত কোনো পথ খোলা নাই। রাষ্ট্রপতির কাছে  প্রাণ ভিক্ষার আবেদন না করলে বা করার পর রাষ্ট্রপতি সেটি গ্রহণ না করলে সরকার তার ফাঁসি কার্যকর করতে পারবে”।

নেত্রকোণা শহরে ১৪ বছর আগে উদীচী শিল্পী গোষ্ঠী ও শতদল কার্যালয়ের সামনে বোমা হামলায় নিহতের স্মরণে ‘স্তব্ধ কর্মসূচি’ পালিত হয়েছে।

নেত্রকোণা ‘ট্র্যাজিডি দিবস উদযাপন কমিটি’র উদ্যোগে রবিবার সকাল ১০টা ৪০ মিনিট থেকে পাঁচ মিনিটের এ কর্মসূচি পালিত হয়।

এ সময় শহরের গুরুত্বপূর্ণ রাস্তায় জনসাধারণকে নীরবে দাঁড়িয়ে থাকতে এবং  যানবাহনগুলোকে থেমে থাকতে দেখা যায়।

পরে শহরের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার থেকে প্রতিবাদী মিছিল বের হয়ে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে।

এর আগে শহরের অজহর রোডে জেলা উদীচী কার্যালয়ের পাশে বোমা হামলায় নিহতদের স্মরণে নির্মিত শহীদ স্মৃতিস্তম্ভে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানায় সর্বস্তরের মানুষ।

সন্ধ্যায় শহরের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে জঙ্গি, সন্ত্রাস ও মৌলবাদ বিরোধী সমাবেশ ও সাংস্কৃতিক পরিবেশনার আয়োজন করা হয়েছে।

বাংলানিউজ লাইন.কম এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন: