Bangla News Line Logo
bangla fonts
১৫ চৈত্র ১৪২৬, সোমবার ৩০ মার্চ ২০২০, ৯:১৯ পূর্বাহ্ণ
facebook twitter google plus rss
সর্বশেষ
চীনে আবার বিদেশী প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা দেশে নতুন আক্রান্ত নেই, ৪ জন সুস্থ মিরপুরে বাসায় আগুন, নিহত ৩ মানুষ এ যুদ্ধেও বিজয়ী হবে -প্রশান্ত কুমার রায় করোনা:নেত্রকোণায় সেনাসদস্য, রেডক্রিসেন্ট স্বেচ্ছাসেবকদের প্রচারণা

জানিয়ার চর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে নানা অনিয়মের অভিযোগ


নিজস্ব প্রতিবেদক, বাংলানিউজলাইন ডটকম:11:47:21 AM08/19/2019


জানিয়ার চর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে নানা অনিয়মের অভিযোগ

সুনামগঞ্জের ধর্মপাশা উপজেলার জানিয়ার চর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়টি নানা অনিয়ম এবং অপরিছন্ন পরিবেশের মধ্য দিয়ে চলার অভিযোগ উঠেছে।  এসব অভিযোগের তদন্তে নেমেছে শিক্ষা অধিদপ্তর।

 স্থানীয়দের অভিযোগ,  বিজয় দিবস, শোক দিবস, মাতৃভাষা দিবসসহ জাতীয় দিবস গুলো বিদ্যালয়ে পালিত হয়না। এতে করে বিদ্যালয়টির শিক্ষার্থীরা স্বাধীনতার প্রকৃত ইতিহাস শিক্ষা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে।

এলাকাবসির অভিযোগ,   বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো.নুরুজ্জামান এবং সহকারী শিক্ষক ইমদাদুর রহমান বিএনপি ও জামায়াত ঘরাণার হওয়ায় বিদ্যালয়ে মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক কোন জাতীয় কর্মসূচি পালিত হয়না।

 ১৯৯৫ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় জানিয়ার চর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়। এখানে বর্তমানে শিক্ষার্থী সংখ্যা রয়েছে ১০৭ জন। শিক্ষক রয়েছেন ৫ জন।

বিদ্যালয়ের পরিবেশ নিয়ে এলাকাবাসীর  অভিযোগ, বিদ্যালয়ের অঙ্গিণায় গোবর দিয়ে জ্বালানী তৈরী করে রোদে শুকানো হয়। বারান্দায় শুকানো হয় বিদ্যালয়ের আশপাশের বাড়ির কাপড়। গরু-ছাগল বাঁধা থাকে বিদ্যালয়ে। অপরিছন্ন পরিবেশেই শিশু শিক্ষার্থীরা শ্রেণী পাঠ নিচ্ছে বাধ্য হয়ে। বিভিন্ন সময়ে স্কুল সংস্কারের জন্য বরাদ্দ আসলেও সঠিক নিয়ম মাফিক সংস্কারের কাজ করা হয়না।

কয়েকজন শিক্ষার্থী জানায়, জাতীয় শোক দিবস ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শাহাদাত বার্ষিকী তাদের স্কুলে পালন করা হয়না। ওই দিন স্কুল বন্ধ থাকে। স্বাধীনতা সম্পর্কেও কোন কিছু শেখানো হয়না তাদের। প্রতিদিন সব ক্লাশ  হয় না। দুইটা তিনটা ক্লাশ হয়।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো.নুরুজ্জামান বলেন, আমার রাজনৈতিক মতাদর্শ থেকে বড় বিষয় হচ্ছে  আমি সরকারী চাকুরী করি। চাকুরীর সব বিধানই মেনে চলি। গত ১৫ অগাষ্ট বিদ্যালয়ে শোক দিবস পালন করা হয়েছে । আসতে আমাদের দেরি হয়েছিল। ৬দিন বিদ্যালয় বন্ধ থাকায় অপরিছন্ন হয়েছে। তবে বিদ্যালয়ে কোন অনিয়ম হয়নি বলেও দাবি করেন,প্রধান শিক্ষক।

ধর্মপাশা উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার হাসিনা আক্তার পারভীন বলেন, জানিয়ার চর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ১৫ই আগষ্টের কোন কর্মসূচি পালন করা হয়নি বিষয়টি আমি অবহিত হয়েছি। এছাড়াও প্রধান শিক্ষক এবং সহকারী শিক্ষকের বিরুদ্ধে অনিয়মের যে অভিযোগ রয়েছে তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে । ঘটনার সত্যতা পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেন, হাসিনা আক্তার পারভীন।

বাংলানিউজ লাইন.কম এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন: