Bangla News Line Logo
bangla fonts
১৭ ফাল্গুন ১৪২৭, মঙ্গলবার ০২ মার্চ ২০২১, ১:০৭ পূর্বাহ্ণ
facebook twitter google plus rss
সর্বশেষ
মুক্তিযোদ্ধাকে কটাক্ষের প্রতিবাদে বিক্ষোভে উত্তাল নেত্রকোণা নেত্রকোণায় প্রতিবেশীর ঘর থেকে গৃহবধূর বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার,আটক ২ বিদেশী ভাষার দাসত্ব করা চলবেনা- যতীন সরকার নেত্রকোণায় শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষা উপকরণ বিতরণ মায়ের ভাষাই মাতৃভাষা

ইভিএমে ভোট মন ছুঁয়েছে জ্যেষ্ঠ ভোটারদের


নিজস্ব প্রতিবেদক, বাংলানিউজলাইন ডটকম:12:23:45 PM01/16/2021


ইভিএমে ভোট মন ছুঁয়েছে জ্যেষ্ঠ ভোটারদের

          

নেত্রকোণায় দ্বিতীয় দফায় দুইটি পৌরসভা নির্বাচন হচ্ছে। এর মধ্যে কেন্দুয়া পৌরসভায় ভোট গ্রহণ চলছে ইভিএমে আর মোহনগঞ্জ পৌর নির্বাচনের ভোট গ্রহণ চলছে ব্যালটে।

কেন্দুয়ায় চলা ইভিএমে ভোট মন ছুঁয়েছে জ্যেষ্ঠ ভোটারদের। ইভিএমে ভোট দিতে তাদের আগ্রহের শেষ নেই। কেউ স্বজনদের কাঁধে চড়ে,কেউবা স্বজনদের কোলে চড়ে কেন্দ্রে কেন্দ্রে যাচ্ছেন ভোট দিতে।

শনিবারসকাল ৮টা থেকে শুরু হয় ভোট গ্রহণ।

শতবর্ষে ভাতিজার কাঁধে চড়ে এসে ভোট দিলেন মস্কান মিয়া। নেত্রকোণার কেন্দুয়া পৌর শহরের কান্দিউড়া এলাকার বাসিন্দা মস্কান মিয়ার বয়স ভোটার আইডি কার্ড অনুযায়ী ১০১ বছর। তিনি ভোট দিয়েছেন আলীপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে। সকাল সাড়ে আটটার দিকে ভোট কেন্দ্রে ভোট দিতে আসেন তিনি ভাতিজা আবু জাফরের কাঁধে চড়ে। জ্যেষ্ঠ এই নাগরিক বলেন, কয়ডা দিন বাঁচি না বাঁচি ।আর কুনু ভোট দিতারি ,না দিতারি কুনু টিক নাই। সহাল সহাল ভোট দিতাম আইয়া পরছি।  আগের থেইক্যা  ভোট দিছি সোজায়। তার ভাতিজা আবু জাফর বলেন, চাচা ১০০ বছর পার কইরা ফালাইছে। বয়স হইছেতো। আগের মত চলতেফিরতে পারেনা্ । কাইল রাত থ্যাইকা ভোট দেয়নের লাইগ্যা কইতাছে। সহালে ভোট দেয়নের লাইগ্যা বাউ অইয়া ডাহাডাহি করতাছে। লইয়া আইলাম কেন্দ্রে। ভোট দিছে। মনডায় অহন শান্তি পাইছে।

জীবনের ৯৩ টি বছর অতিক্রম করে আসা কেন্দুয়া পৌর শহরের সাউদপাড়া এলাকার বাসিন্দা আমেনা খাতুন।১৯২৭ সালে জন্ম আমেনা খাতুনের। বেলা ১১টার দিকে কেন্দুয়া সরকারি কলেজ কেন্দ্রে ভোট দিতে আসেন তিনি। বাড়ি থেকে রিক্সায় রওয়ানা দিলেও ভোট কেন্দ্রে ঢোকেন  নাতি ইমরান মিয়া কোলে চড়ে  ।

কেমন লাগল ভোট দিতে প্রশ্ন করতেই খুশি ফুটে উঠলো শতায়ূ ছুঁই ছুঁই করা আমেনা খাতুনের। মুখের চামড়ায় পড়া  ভাঁজে যেন শীতের সকালে রোদের ঝিলিক বয়ে গেল। বললেন, হারা জীবন কতো ভোট দিছি। চিল মাইর‌্যা। এইবার আঙ্গুলে টিপ মাইরা ভোট দিছি। ভালা লাগছে।

আমেনা খাতুনের নাতি ইমরান মিয়া বলেন, ইভিএমে ভোটের কথা হোনার পর থেইক্যা দাদী ভোট দিয়াম দিয়াম করতাছে। লইয়া আইলাম। ভোট দিছে। ইভিএমে ভোট দিয়া দাদী কুব খুশি অইছে।

কেন্দুয়া সরকারি কলেজ কেন্দ্রটির প্রিজাইডং কর্মকর্তা হায়দার জাহান জানান, কেন্দ্রটিতে  ২হাজার ৭০১টিভোট রয়েছে। বেলা ১১টা পর্যন্ত  ৫০২টি ভোট পড়েছে।এখানে ভালভাবে ভোট গ্রহণ চলছে।

সকাল ১০টার দিকে কেন্দুয়া পৌরসভার  বিএনপির মেয়র প্রার্থী  শফিকুল ইসলাম  বলেন, ভোটের পরিবেশ ভাল আছে ।এভাবে ভোট হলে জয়ী হবো।

সকাল সোয়া ১০টার দিকে নৌকার প্রার্থী আসাদুল হক ভুইয়া বলেন, সুষ্ঠু ও সুন্দর পরিবেশে ভোট হচ্ছে, ভোটার খুব আগ্রহে ভোট দিচ্ছেন।

মোহনগঞ্জ পৌরসভা ভোটের সহকারি রিটার্ণিং কর্মকর্তা ও উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা জহিরুল হক জানান, মেয়রপদে  চার জন , ৩৯ জন  সাধারণ কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর পদে ১৪ জন লড়ছেন। ভোটে ১০ হাজার ৯৯১ জন নারী ও  ১০ হাজার ৪১৩জন পুরুষ মিলিয়ে ২১ হাজার ৪০৪ জন ভোটার তাদের ভোটধিকার প্রয়োগ করছেন।৯টি কেন্দ্রে  ৯ প্রিজাইডিং, ৬৪ সহকারি,ও  ১২৮ জন পোলিং কর্মকর্তা এই ভোট  গ্রহণ করছেন। কোন রকম অশান্তি ছাড়াই নির্বিঘ্নে ভোট গ্রহনে পুলিশ, আনসার, র‌্যাব, বিজিবির পাশাপাশি ৯ জন নির্বাহী হাকিম ও একজন বিচারিক হাকিম দায়িত্ব পালন করছেন।

এখানে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের বর্তমান মেয়র লতিফুর রহমান নৌকা, আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী হয়ে নারকেল গাছ প্রতীকে লড়ছেন, তাহমিনা পারভীন বিথি, বিএনপির সাবেক মেয়র মাহবুবুন্নবী শেখ ধানের শীষ ও মোবাইল ফোন প্রতীকে স্বতন্ত্র রয়েছেন,  চৌধুরী কামাল আবু হেনা মোস্তফা।

এদিকে কেন্দুয়া পৌরসভায় মেয়র পদে আওয়ামী লীগের প্রার্থী বর্তমান মেয়র আসাদুল হক নৌকা  ও বিএনপির প্রার্থী উপজেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম ধানের শীষ প্রতীকে ভোট যুদ্ধে রয়েছেন। এখানে সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৩৪ জন ও সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর পদে ১৩ জন লড়ছেন।

জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং কর্মকর্তা আব্দুল লতিফ শেখ বলেন, ইভিএম পদ্ধতিতে সুষ্ঠু ভোট গ্রহণের জন্য ৯টি কেন্দ্রে ৯ জন প্রিজাইডিং, ৪২ জন সহকারি প্রিজাইডিং ও  ৮৪ জন পোলিং কর্মকর্তা দায়িত্ব পালন করছেন।এছাড়াও ৯ জন নির্বাহী হাকিম , ১ জন বিচারিক হাকিমসহ পর্যাপ্ত সংখ্যক পুলিশ, আনসার, র‌্যাব ও বিজিবি সদস্যরা  রয়েছেন ভোটের মাঠে। এই পৌরসভায় মোট  ১৬ হাজার ২৫৬ জন তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করছেন ।

বাংলানিউজ লাইন.কম এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন: